বিএনপি তাদের সঙ্গী জামাতকে নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, এদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : বাহাউদ্দিন নাছিম

বিএনপি তাদের সঙ্গী জামাতকে নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, এদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : বাহাউদ্দিন নাছিম

দৈনিক প্রবাহবার্তা ওবায়দুল হক খান : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, যারা দেশে বিদেশে ষড়যন্ত্র করে, আমাদের আগুন সন্ত্রাসের ভয় দেখায় তারা অপশক্তি। সকল অপশক্তিকে পরাভূত করতে হবে। এই অপশক্তি বিএনপি জামাত সুযোগ পেলে আমাদের একশ বছর পিছিয়ে দেবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগষ্ট) মহানগর নাট্যমঞ্চের কাজী বশির মিলনায়তনে ওয়ারী থানা ও ৩৮, ৩৯, ৪১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ষড়যন্ত্রের দল বিএনপির জন্ম অবৈধ পন্থায় সেনা ছাউনিতে বসে খুনি জিয়াউর রহমানের হাত ধরে। এরাই ২০০১ সালে পোড়ামাটির নীতি নিয়ে আওয়ামী লীগের ২৬ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করেছিলো। এই বিএনপি তাদের সঙ্গী জামাতকে নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। এদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে।আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধুর লক্ষ্য ছিলো বাংলাদেশকে সোনার বাংলাদেশে পরিণত করা। খুনি, ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্রে ১৯৭৫ সালে আমরা জাতির পিতাকে হারিয়েছি। জাতির পিতার সুযোগ্য সন্তান শেখ হাসিনা আমাদের নেতৃত্ব দিয়ে দীর্ঘ লড়াই সংগ্রাম করে উন্নয়নের পথে নিয়ে গিয়েছেন। তিনি আমাদের বিশ্ব দরবারে সম্মানিত করেছেন। তার এই অগ্রযাত্রা সমুন্নত রাখার জন্য আমাদের কাজ করতে হবে।

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আমাদের অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে দলকে গড়তে হবে। আমরা ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ ব্যর্থ হবে। তাই আমাদের সৎ, দেশপ্রেমিক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলকে শক্তিশালী করতে হবে। আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করতে হবে। এটা কথায় নয়, হৃদয়ে ধারণ করতে হবে,এই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। আমাদের শক্তি জনগণ, জাতির পিতার আদর্শ। সেই আদর্শ নিয়ে জনগণকে সাথে নিয়ে কাজ করতে হবে।

ওয়ারী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী আশিকুর রহমান লাভলুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হাজী আবুল হোসেনের সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এড. জাহাঙ্গীর কবির নানক।

সম্মেলন উদ্বোধন করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী ও প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন কবির। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এম.পি, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

শিল্প-সংস্কৃতির প্রতি অসম্ভব ভালোবাসা ছিলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের। এ ভালোবাসা থেকেই বঙ্গবন্ধু যখন প্রাদেশিক সরকারের শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী ছিলেন তখন ১৯৫৭ সালের ৩ এপ্রিল তার দূরদর্শিতায় চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন প্রতিষ্ঠার বিল আনা হয়। প্রতিষ্ঠিত হয় আজকের বাংলাদেশে চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (এফডিসি)।

সিনেমা অঙ্গনকে ভালোবেসে এদেশের চলচ্চিত্রের উন্নয়নে আমৃত্যু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তিনি নিজেও সিনেমাতে অভিনয় করেছেন। বঙ্গবন্ধু অভিনীত সিনেমাটির নাম ‘সংগ্রাম’। ছবিটি পরিচালনা করেন প্রয়াত নির্মাতা চাষী নজরুল ইসলাম।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র ‘সংগ্রাম’। এতে ছোট্ট এক ভূমিকায় হাজির হয়েছিলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ এই বাঙালি। সে সময়ের চিত্রনায়ক কামরুল আলম খান খসরু ও চাষী নজরুল ইসলামের অনুরোধে ছোট্ট ওই চরিত্রে অভিনয়ে রাজি হয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।

ছবির চিত্রনাট্যের শেষ দিকে ছিল, মুক্তিযুদ্ধের পর সদ্য স্বাধীন দেশের সামরিক বাহিনী বাঙালির মুক্তি সংগ্রামের নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে স্যালুট করছে। এই দৃশ্য কীভাবে ধারণ করা যায় সে নিয়ে চিন্তায় পড়েছিলেন পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম। একপ্রকার দুঃসাহস নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়ে বসেন ছবিটির নায়ক খসরু। কিন্তু বঙ্গবন্ধু প্রথমে রাজি হননি। পরে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মান্নানকে দিয়ে সুপারিশ করিয়ে অভিনয়ের জন্য তাকে রাজি করানো হয়।

‘সংগ্রাম’ ছবিটিতে নাযক ছিলেন খসরু আর নায়িকা সূচন্দা। ছবিটি ১৯৭৪ সালে মুক্তি পায়।

বঙ্গবন্ধু যে চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন